বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২০, ২০২২

ভারতীয় বাহিনীর ভুল ফায়ারিংয়ে ১৪ বেসামরিক নাগরিক নিহত

আরও পড়ুন

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

স্বেচ্ছায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিল্পীর মৃত্যু

নাগাল্যান্ড রাজ্যের প্রত্যন্ত উত্তর-পূর্বে ভারতীয় বাহিনী নির্বিচারে গুলি চালালে অন্তত ১৪ জন উপজাতীয় বেসামরিক নাগরিক এবং একজন নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়। আজ রোববার (৫ ডিসেম্বর) দেশটির সরকারি ও সামরিক কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন।

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, শনিবার গভীর রাতের এ ঘটনায় বেসামরিক লোক নিহত হওয়ার খবরে তিনি ‘ব্যথিত’।

নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নিফিউ রাইও একে গোয়েন্দা ব্যর্থতার জন্য দায়ী করে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, একটি তদন্ত পরিচালিত হবে এবং এই ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে।

নয়াদিল্লিতে অবস্থিত ফেডারেল প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থাটিকে বলেছেন, হামলায় অন্তত এক ডজন বেসামরিক নাগরিক এবং নিরাপত্তা বাহিনীর কিছু সদস্য আহত হয়েছেন।

নাগাল্যান্ডের স্থানীয়রা প্রায়শই বিদ্রোহী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে তাদের পাল্টা বিদ্রোহ অভিযানে নিরপরাধ স্থানীয়দেরকে ভুলভাবে লক্ষ্যবস্তু করার অভিযোগ করেছে।

নাগাল্যান্ডে অবস্থিত একজন সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছেন, রাজ্যে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর মোতায়েনের একটি অংশ আসাম রাইফেলসের সদস্যদের দ্বারা পরিচালিত বিদ্রোহ বিরোধী অভিযানের সময় মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী মোন জেলার ওটিং গ্রামে এবং এর আশেপাশে ঘটনাটি ঘটেছে।

৩০ বা তার বেশি কয়লা-খনি শ্রমিক বহনকারী একটি ট্রাক আসাম রাইফেলস ক্যাম্প এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় গুলি শুরু হয়।

সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে রয়টার্সকে বলেছেন, ‘সৈন্যদের কাছে এলাকায় কিছু জঙ্গি আন্দোলন সম্পর্কে গোয়েন্দা তথ্য ছিল এবং ট্রাকটি দেখে তারা খনি শ্রমিকদের বিদ্রোহী বলে মনে করে এবং গুলি চালিয়ে ছয় শ্রমিককে হত্যা করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘গ্রামে গুলি চালানোর খবর ছড়িয়ে পড়ার পর, শত শত উপজাতি মানুষ সেনা শিবির ঘেরাও করে। তারা আসাম রাইফেলসের গাড়ি পুড়িয়ে দেয় এবং স্থানীয় অস্ত্র ব্যবহার করে সৈন্যদের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। আসাম রাইফেলসের সদস্যরা পাল্টা হামলা চালায় এবং দ্বিতীয় হামলায় নিহতদের মধ্যে আরও আটজন বেসামরিক এবং একজন নিরাপত্তা সদস্য ছিলেন।’

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

সন্তান ধারনে এইডস আক্রান্ত নারীর ঝুঁকি অনেক বেশি

কর্মবিরতির হুমকি রেল কর্মীদের

দেশে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড