সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১

মাগুরায় গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

আরও পড়ুন

গরুতে ঘাস খাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাগুরা শহরের পারন্দুয়ালী এলাকায় জোসনা বেগম (৪৫) নামের এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাগুরা থেকে ঢাকা নেওয়ার পথে জোসনা বেগম মারা যান। জোসনা বেগম ওই এলাকার শুকুর শেখের স্ত্রী।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রতিবেশী জিহাদের স্ত্রী জহুরা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুরুল আলম।

নিহত জোসনা বেগমের বড় ছেলে রুবেল শেখের বরাত দিয়ে ওসি গণমাধ্যমকে জানান, বাড়ির পাশে জোসনা বেগমদের এক জমিতে তারা নেপিয়ার ঘাসের চাষ করেছেন। বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সকালে ঘাসের জমিতে জিহাদ হোসেনের গরু ঢুকে পড়ে। এ সময় তার (রুবেল) মা জোসনা বেগম বিষয়টি তাদেরকে জানালে জিহাদ হোসেনের সঙ্গে মায়ের কথা কাটাকাটি হয়। পরবর্তীতে ওইদিন দুপুরে জিহাদ হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন জোসনা বেগম ও রুবেলকে পিটিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে জোসনা বেগমের অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে তাকে ফরিদপুর মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আজ শুক্রবার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেওয়ার পথে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে অ‌্যাম্বুলেন্সের মধ্যে মারা যান জোসনা বেগম। আহত রুবেল মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ওসি মঞ্জুরুল আলম আরও জানান, নিহত জোসনা বেগমের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মাগুরা ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ