বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২০, ২০২২

মিয়ানমারে সু চির বিরুদ্ধে প্রথম মামলার রায় পিছিয়েছে

আরও পড়ুন

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

স্বেচ্ছায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে শিল্পীর মৃত্যু

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে প্রায় ডজন খানেক মামলার মধ্যে প্রথম মামলার বিচার কাজ শেষ হয়েছে। তবে আজ মঙ্গলবার রায় ঘোষণার কথা থাকলেও তা পিছিয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ রায় স্থগিত করেছে দেশটির জান্তা সরকার।

সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে উস্কানি দেয়া ও করোনার বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের দায়ে সুচির বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার কথা ছিল আজ। এতে তার দুই ও তিন বছরের সাজা হতে পারে ধারণা করা হচ্ছিল। কী কারণে রায় ঘোষণা স্থগিত করা হয়েছে, সে ব্যাপারে খবরে কিছু উল্লেখ করা হয়নি।

সুচির পাশাপাশি তৎকালীন বহিস্কৃত রাষ্ট্রপতি ও ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির নেতা উইন মিন্টকেও একই দণ্ড দেয়া হতে পারে। সু চির বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও সরকারি গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগও রয়েছে।

খবরে আরো বলা হয়, সুচির বিরুদ্ধে অন্যান্য যেসব অভিযোগ আছে, তা প্রমাণিত হলে কয়েক দশকের সাজা হতে পারে তার। নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, তার বিরুদ্ধে আনা ১১টি অভিযোগ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ ১০২ বছরের সাজা হতে পারে।

সাম্প্রতিক অভিযোগগুলোতে সু চি’র পাশাপাশি তার ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি দলের আরও ১৫ জন বয়োজ্যেষ্ঠ নেতার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে সুচির কাছ থেকে ক্ষমতা কেড়ে নেয় জান্তা সরকার। নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে ২০২০ সালের নির্বাচনে জালিয়াতিসহ অন্যান্য অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে দেশটির সামরিক বাহিনীর আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন।

নিউজ হান্ট/আরকে

সর্বশেষ

বিদায় নিচ্ছেন সানিয়া মির্জা

করোনায় একদিনে বিশ্বে ৩২ লাখ শনাক্ত

সন্তান ধারনে এইডস আক্রান্ত নারীর ঝুঁকি অনেক বেশি

কর্মবিরতির হুমকি রেল কর্মীদের

দেশে চা উৎপাদনে নতুন রেকর্ড