রবিবার, নভেম্বর ২৮, ২০২১

যুব বিশ্বকাপে খেলবে না নিউজিল্যান্ড

আরও পড়ুন

২০২২ সালে ফের বসছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আসর। কিন্তু সেটিতে দেখা যাবে না নিউজিল্যান্ডের যুবাদের। তে কপাল খুলেছে স্কটল্যান্ডের। বাছাইপর্ব পেরোতে না পারলেও তাদের অনূর্ধ্ব-১৯ দল সুযোগ পেয়ে গেল ২০২২ সালের বিশ্বকাপে।

নিউজিল্যান্ডে এখনও পুরোপুরি শিথিল হয়নি করোনাভাইরাসজনিত বিধিনিষেধ। বিশেষ করে অন্য দেশ থেকে কেউ নিউজিল্যান্ডে গেলে পালন করতে হয় কঠোর কোয়ারেন্টাইন। নিউজিল্যান্ড সরকারের কোয়ারেন্টিন নিয়মানুসারে, কোয়ারেন্টিনমুক্ত দেশ ব্যতীত অন্য যেকোনো দেশ থেকে নিউজিল্যান্ডে ফেরার পর অবশ্যই ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন করতে হবে।

তবে নিউজিল্যান্ড সরকার বেশ কিছু দেশের একটি তালিকা করে সেগুলোকে শর্ত সাপেক্ষে ‘কোয়ারেন্টিন ফ্রি’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। অর্থাৎ ওই দেশগুলো থেকে নিউজিল্যান্ডে ফিরলে কোনো কোয়ারেন্টিন করতে হবে না।

এবারের অনূর্ধ্ব–১৯ বিশ্বকাপ আয়োজন করবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিউজিল্যান্ডের কোয়ারেন্টিনমুক্ত দেশগুলোর মধ্যে না থাকায় এ দেশ থেকে যাঁরাই নিউজিল্যান্ডে ফিরবেন, তাঁদেরই ১৪ দিনেই কোয়ারেন্টিন করতে হবে। এ নিয়ম কারও জন্যই শিথিলযোগ্য নয়। ফলে ক্রিকেটাররাও কোনো ছাড় পাবেন না।  মূলত এ কারণেই আগামী বছরের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ থেকে নিজেদের নাম সরিয়ে নিয়েছে কিউইরা।

যার ফলে কপাল খুলে গেছে স্কটল্যান্ডের। প্রাথমিকভাবে ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইপর্ব পেরোতে না পারলেও, নিউজিল্যান্ড সরে দাঁড়ানোয় ১৬তম দেশ হিসেবে নেওয়া হয়েছে স্কটল্যান্ডকে। তাদের রাখা হয়েছে ডি গ্রুপে। যেখানে অন্য তিন দল স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা।

আগামী ১৪ জানুয়ারি থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হবে যুব বিশ্বকাপের ১৪তম আসরটি। চার গ্রুপে ভাগ হয়ে লড়বে ১৬টি দল। ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের চারটি দেশ অ্যান্টিগা এন্ড বারবুদা, গায়ানা, সেইন্ট কিটস এন্ড নেভিস ও ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগোর ১০টি মাঠে হবে সব খেলা।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ-২০২২ এর গ্রুপিং

গ্রুপ এ: বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, কানাডা, সংযুক্ত আরব আমিরাত
গ্রুপ বি: ভারত, আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, উগান্ডা
গ্রুপ সি: আফগানিস্তান, পাকিস্তান, পাপুয়া নিউগিনি, জিম্বাবুয়ে
গ্রুপ ডি: অস্ট্রেলিয়া, স্কটল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ

নিউজ হান্ট/ইস

সর্বশেষ