মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৭, ২০২১

লাদাখ সীমান্তে রাশিয়ার এস-৪০০ বসাবে ভারত

আরও পড়ুন

লাদাখ এবং অরুণাচল প্রদেশের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (এলএসি) চীনকে মোকাবিলার উদ্দেশে রাশিয়া থেকে কেনা এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা মোতায়েন করবে ভারতীয় সেনা। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্র দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, আগামী বছরের গোড়াতেই রাশিয়া থেকে আনা দু’টি এস-৪০০ উত্তর এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নিয়ন্ত্রণরেখায় মোতায়েন করা হবে।

ভারতীয় সেনার ‘এয়া ডিফেন্স রেজিমেন্ট’ এর নিয়ন্ত্রণে এস-৪০০ মোতায়েন হওয়ার পরে এলএসসিতে শক্তির ভারসাম্যে বেইজিংয়ের সঙ্গে নয়াদিল্লি পাল্লা দিতে পারবে বলে মনে করছেন ভারতের প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা। শুধু ক্ষেপণাস্ত্র নয়, এই প্রযুক্তির সাহায্যে শত্রুর বিমান এবং ড্রোনও ধ্বংস করা যাবে।

২০১৯ সালের গোড়ায় যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, রাশিয়ার সঙ্গে এস-৪০০ কেনার চুক্তি বাতিল করলে ভারত টার্মিনাল হাই অলটিটিউড এরিয়া ডিফেন্স (থাড) এবং পেট্রিয়ট-৩ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধ ব্যবস্থা পাবে। কিন্তু প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের তুলনামূলক বিচার করে এস-৪০০ কেনার সিদ্ধান্তে অটল থাকে নয়াদিল্লি। রাশিয়ার থেকে চীনও এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা কিনেছে।

২০০৭ সালে প্রথম রুশ বাহিনীতে এস-৪০০ অন্তর্ভুক্ত হয়। ২০১৪ সালে এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা কেনার বিষয়ে মস্কোর সঙ্গে যোগাযোগ করে নয়াদিল্লি। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাশিয়া থেকে এস-৪০০ কেনার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। ২০১৮ সালের অক্টোবরে পুতিনের দিল্লি সফরের সময় এ বিষয়ে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকার চুক্তি সই হয়েছিল। ডিসেম্বর মাসে প্রথম দফায় দু’টি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী ব্যবস্থা রাশিয়া থেকে ভারতে এসে পৌঁছনোর কথা। পরের দফায় আসবে আরও তিনটি।

নিউজ হান্ট/কেএইচ

সর্বশেষ