বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২১, ২০২১

১১২ নম্বর গোলে স্মরণীয় রোনালদোর রেকর্ড

আরও পড়ুন

আজ (শনিবার) রাতে ঘরের মাঠ এস্তাদিও আলগার্ভেতে বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতারের বিপক্ষে  ৩-০ গোলে জয় পেয়েছে পর্তুগাল। দুই ম্যাচ পর জাতীয় দলে ফিরেই গোল করলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। তবে ম্যাচটি খেলতে নেমেই আন্তর্জাতিক ফুটবলে ইউরোপিয়ান একটি রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন রোনালদো।

কাতারের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচটি ছিল রোনালদোর ক্যারিয়ারে পর্তুগালের হয়ে ১৮১তম ম্যাচ। ইউরোপের জাতীয় দলগুলোর কোনো খেলোয়াড় এর চেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেননি। ইউরোপের দলগুলোর মধ্যে জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটি এতদিন ছিল স্পেনের ডিফেন্ডার সের্হিও রামোসের। স্পেনের হয়ে ১৮০ ম্যাচ খেলেছেন এ মৌসুমেই রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পিএসজিতে নাম লেখানো তারকা এ ডিফেন্ডার।

রেকর্ড গড়ার উপলক্ষটা গোল করে স্মরণীয় করে রেখেছেন রোনালদো। দলের ৩–০ গোলের জয়ে ৩৭ মিনিটে প্রথম গোলটিই করেছেন পর্তুগালের অধিনায়ক। আন্তর্জাতিক ফুটবলে নিজের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা তিনি আরেকটু চওড়া করে নিলেন এই গোল দিয়ে। পর্তুগালের জার্সিতে এখন তাঁর গোলসংখ্যা ১১২টি।

ম্যাচের ৪৮তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে স্বাগতিকরা। মারিওর ফ্রি কিকে দানিলো পেরেইরার হেড গোলরক্ষক ফেরালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। কাছ থেকে জাল খুঁজে নেন লিলের ডিফেন্ডার ফন্তে।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে দলের বড় জয় নিশ্চিত করে ফেলেন সিলভা। লিয়াওয়ের ক্রসে হেডে গোলটি করেন লাইপজিগের এই ফরোয়ার্ড।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে ইউরোপের খেলোয়াড়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা আগামী পরশুই আবার বাড়িয়ে নিতে পারবেন রোনালদো। এদিন যে একই মাঠে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে খেলতে নামবে তাঁর দল।

২০২২ কাতার বিশ্বকাপের জন্য ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইপর্বে ‘এ’ গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে আছে পর্তুগাল। ৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট তাদের। ১৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা সার্বিয়া অবশ্য একটি ম্যাচ বেশি খেলেছে।

নিউজ হান্ট/ইস

সর্বশেষ