বুধবার, ডিসেম্বর ১, ২০২১

২৮ অক্টোবরে কী হতে যাচ্ছে ফেসবুকে!

আরও পড়ুন

আজ বুধবার (২০ অক্টোবর) বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, আগামী সপ্তাহে নতুন নামে ব্র্যান্ডিং করার পরিকল্পনা করছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক।

দ্য ভার্জের বরাত দিয়ে রয়টার্সের খবরে বলা হয়, আগামী ২৮ অক্টোবর কোম্পানির বার্ষিক কানেক্ট কনফারেন্সে নাম পরিবর্তনের বিষয়ে কথা বলার পরিকল্পনা করেছেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ।

একটি মূল প্রতিষ্ঠানের অধীনে ফেসবুকের সবগুলো প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে আসতে এই নতুন নাম আসছে। এর মাধ্যমে ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, ওকুলাসসহ তাদের মালিকানাধীন বাকি প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখবে ফেসবুক। অর্থাৎ পাল্টে যেতে পারে ফেসবুকের নাম!

এদিকে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নতুন একটি নোটিফিকেশন পেয়েছেন অনেকেই, যেখানে বলা হচ্ছে যে, ২৮শে অক্টোবরের মধ্যে ফেসবুক প্রোটেক্ট নামে একটি ফিচার টার্ন অন বা চালু করতে হবে। তা না হলে ফেসবুকের অ্যাকাউন্ট লক হয়ে যাবে।

এ ধরনের বার্তা পেয়ে অনেকেই ঘাবড়ে যাচ্ছেন। এটা কোন ধরনের স্প্যাম কিংবা ভাইরাস কিনা তা নিয়েও শঙ্কায় রয়েছেন কেউ কেউ। অনেকে আবার এরইমধ্যে ফিচারটি অন করে দিয়েছেন।

এখন অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে— ২৮ অক্টোবরে বা এরপর আসলে কী হতে যাচ্ছে ফেসবুকে? বড় ধরণের পরিবর্তন নাকি অন্য কিছু?

ফেসবুকের নাম পরিবর্তনের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ফেসবুকের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ফেসবুক প্রোটেক্ট সম্পর্কে ফেসবুকের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, বেশ কিছু অ্যাকাউন্টকে বাড়তি নিরাপত্তা দিতে তারা একটি নতুন ফিচার তৈরি করেছে যার নাম দেয়া হয়েছে ফেসবুক প্রোটেক্ট।

এটি একটি ভলানটারি (ঐচ্ছিক) প্রোগ্রাম যা নির্বাচনী প্রার্থী, তাদের প্রচারণা এবং নির্বাচিত প্রতিনিধিদের অ্যাকাউন্টকে বাড়তি সুরক্ষা দেবে।

প্রাথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির নির্বাচনের সময় সেখানকার প্রার্থীদের ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের সুরক্ষায় এই প্রোগ্রামটি তৈরি করা হয়েছিল। পরে এটি কানাডাতেও চালু করা হয়।

তবে ২০২১ সালে এটি বিশ্বের অন্যান্য দেশের জন্য সরবরাহ করা হবে বলেও জানানো হয়। এ বিষয়ক আপডেটও ফেসবুকের মাধ্যমেই জানানো হবে বলে ফেসবুক জানায়।

নিউজ হান্ট/এএস

সর্বশেষ